Ticker

6/recent/ticker-posts

ইউটিউব অ্যাপে ব্যবহার করুন ইনকগনিটো মোড


ব্রাউজারে তো অনেক বার ইনকগনিটো মোড ব্যবহার করেছেন হয়তো। ইনকগনিটো মোড হলো প্রাইভেসির জন্য চমৎকার একটি ফিচার। যখন কোন ব্রাউজারে ইনকগনিটো মোড চালু করা হয় তখন ইনকগনিটো মোডে যেসব ওয়েবসাইট ভিজিট করা হয় সেগুলোর সকল প্রকার কুকিজ, ক্যাশ, পাসওয়ার্ড, হিস্টোরি ইত্যাদি ব্রাউজার ক্লোজ করার সাথে সাথে ডিলেট হয়ে যায়। 

ইউটিউব ইনকগনিটো মোড

ইউটিউব ইনকগনিটো মোডও ব্রাউজারের মতোই কাজ করে। সচরাচর ইউটিউবে কোন সার্চ করলে এবং কোন ভিডিও দেখলে সেগুলোর হিস্টোরি ইউটিউব অ্যাপে সেভ হয়ে থাকে। এতে করে কেউ আপনার ইউটিউবে ঢুকলেই সব কিছু দেখে নিতে পারে। কিন্তু ইউটিউবের ইনকগনিটো মোড ব্যবহারের কারনে এসবের কোন কিছু সেভ করা হয় না।

ইউটিউব অ্যাপে ইনকগনিটো মোড চালু করবেন কিভবে?

ইনকগনিটো মোড ব্যবহার করার জন্য প্রথমে ইউটিউব অ্যাপে প্রবেশ করুন। এবার ডানপাশে উপরের প্রফাইল ইমেজে ক্লিক করুন।


এবার বেশ কিছু অপশন আসবে। তার মধ্যে থেকে Turn on incognito অপশনে ক্লিক করুন।


প্রথমবার ইনকগনিটো মোড অন করাতে আপনি একটি মেসেজ উইনডো দেখতে পাবেন। তখন এবার Got it বাটনে ক্লিক করুন। ব্যাস চালু হয়ে গেল ইনকগনিটো মোড।


ইনকগনিটো মোড ব্যবহার এর সুবিধা

  • ইউটিউবে কোন ভিডিও দেখলে ভিডিও হিস্টোরিতে সব সেভ করা থাকে। ইন্তু ইনকগনিটোতে কোন ভিটিও ওয়াচ হিস্টোরি সেভ করা হয় না তাই প্রাইভেসিতে কেউ হস্তক্ষেপ করতে পারবে না। 
  • ইনকগনিটো মোডে সার্চ হিস্টোরি সেভ করা হয় না। 
  • সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো আপনি কোন ধরনের ভিডিও দেখেন ও সার্চ করেন তার উপর ভিত্তি করে ইউটিউবের হোম পেজে আপনাকে ভিডিও সাজেস্ট করা হয়। এতে করে পরিবারের কেউ আপনার ইউটিউবে গেলে আপনার প্রাইভেসির বারোটা বেজে যায়। কিন্তু ইনকগনিটো নিয়মিত ব্যবহার এর অভ্যাস করলে নিশ্চিত নিরাপদে থাকতে পারবেন। 

কিভাবে ইনকগনিটো মোড বন্ধ করবেন?

ইনকগনিটো মোড বন্ধ করতে আবার প্রোফাইল ইমেজে ক্লিক করুন। এতে কয়েকটি অপশন আসবে। সেখান থেকে Turn of incognito তে ক্লিক করুন। ইনকগনিটো চলে যাবে। 

Post a Comment

0 Comments